রাজনীতি

রাষ্ট্রপতির সংলাপে যাচ্ছে না বিএনপি

নির্বাচন কমিশন গঠনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আজ (বুধবার) সংলাপে যাচ্ছে না বিএনপি। এমনকি সংলাপকে অর্থহীন মন্তব্য করেছে দলটি। গত ২৯ ডিসেম্বর এক বিবৃতিতে সংলাপে অংশ না নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বিএনপি। এরপর থেকেই দলীয় সভা-সমাবেশে নেতারা সংলাপ বর্জনের ব্যাপারে জো'র বক্তব্য দিয়ে আসছেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ই'স'লা'ম আলমগীর স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, বিএনপি বিশ্বা'স করে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ ও নির্দলীয় সরকার ছাড়া সুষ্ঠু, অবাধ, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন কোনো কমিশনই করতে পারবে না। রাষ্ট্রপতি নিজেই বলেছেন, তার কোনো ক্ষমতা নেই পরিবর্তন করার। সেই কারণে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে রাজনৈতিক দলগুলোর সংলাপ কোনো ইতিবাচক ফল আনতে পারবে না। বিএনপি অর্থহীন কোনো সংলাপে অংশ নেবে না।

নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে চলমান রাষ্ট্রপতির সংলাপে অংশ নিতে গত ৫ জানুয়ারি প্রধান বিরোধী রাজনৈতিক দল বিএনপিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। আমন্ত্রণপত্রে ১২ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় তাদের সঙ্গে সংলাপে অংশ নিতে বলা হয়। একই দিন সন্ধ্যা ৬টায় ন্যাশনাল পিপলস পার্টিকে (এনপিপি) আমন্ত্রণ জানানো হয়। রাষ্ট্রপতির দপ্তর থেকে বিএনপিকে সংলাপের আমন্ত্রণপত্র দলীয় কার্যালয়ে পৌঁছে দেওয়া হয়। আমন্ত্রণপত্রটি গ্রহণ করেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

সংলাপে অংশ নেওয়ার বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার গঠন এবং নিরপেক্ষ প্রশাসনের সাংবিধানিক নিশ্চয়তা ব্যতীত নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে সংলাপ শুধু সময়ের অ'পচয়।

তিনি বলেন, বিগত দুটি নির্বাচন কমিশন গঠনের আগে রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলো অংশ নিয়ে তাদের মতামত দিয়েছিল। বিএনপি নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রক্রিয়া নিয়ে সুস্পষ্ট প্রস্তাব লিখিতভাবে রাষ্ট্রপতির কাছে পেশ করেছিল।

Back to top button