বড়লেখামৌলভীবাজার

বড়লেখায় স্বয়ং সরকারি হাসপাতা'লেই উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি, টিকা নিতে আসা মানুষদের ভিড়

বড়লেখা প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজে'লা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্রে চলছে টিকাদান৷ উপজে'লার বিভিন্ন এলাকা থেকে সাধারণ মানুষ এসেছেন টিকা নিতে। কেউবা এসেছেন প্রথম ডোজ আবার কেউবা এসেছেন দ্বিতীয় ডোজ টিকা নিতে। তবে টিকা নিতে আসা এসব মানুষ সারিবদ্ধ ভাবে টিকা গ্রহণের কথা থাকলেও কেউই সারিবদ্ধ ভাবে দাঁড়াননি। একসাথে গাদাগাদি করে টিকা নিতে দেখা গেছে টিকা গ্রহীতাদের। এ ব্যাপারে যথাযত কর্তৃপক্ষও ছিলো উদাসীন। আর এতে ক'রো'না থেকে বাঁচতে টিকা গ্রহন করতে আসা মানুষদের মধ্যে উল্টো করোনর সংক্রমণের আশংকা দেখা দিচ্ছে৷

১৯ সেপ্টেম্বর (রবিবার) সরেজমিনে উপজে'লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গেলে দেখা যায়, হাসপাতা'লের নিচ তলায় ক'রো'নার টিকা দেওয়া হচ্ছে। এসময় টিকা নিতে আসা শতাধিক মানুষ ভিড় করছেন। নেই কোন শৃঙ্খলা। সেখানে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি। নেই সামাজিক দূরত্ব, অনেকের মুখে মাস্ক নেই, কারও মাস্ক আবার থুতনিতে।

হাসপাতাল সুত্রে জানা যায়, রবিবার বড়লেখা উপজে'লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রথম ডোজ ও দ্বিতীয় ডোজ মিলে মোট ১২ শত ৬০ জনকে করোনার টিকা প্রদান করা হয়। এনিয়ে উপজে'লায় মোট ৩১ হাজার টিকার জন্য নিবন্ধনকারীকে টিকা প্রদান করা হয়েছে। রবিবার একদিনে সর্বোচ্চ মানুষকে টিকা প্রদান করা হয়েছে। ফলে সাধারণ মানুষ গাদাগাদি করে দাঁড়িয়েছেন৷ টিকা নিতে আসা মানুষদের বার বার সচেতন করা হলেও তারা তা মানেননি।

এ বিষয়ে বড়লেখা উপজে'লা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মক'র্তা ডা. রত্নদ্বীপ বিশ্বা'স বলেন, ‘আজকে মানুষের ভিড় থাকায় কিছুটা জটলা হয়েছিলো। লাইনে দাঁড়ানো মানুষকে বার বার স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাঁড়ানোর কথা বললেও তারা মানেননি। পরে বড়লেখা থা'নার পু'লিশের সহযোগিতা নিয়েছিলাম’।

Back to top button