সারাদেশ

সিলেটে তামান্না হ’ত্যা: পালিয়েছেন ‘ঘট’ক’ পারভীন, খুঁজছে পু’লিশ

টাইমস টিভি ডেস্কঃ সিলেট নগরীর উত্তর কাজীটুলার এলাকার অন্তরঙ্গ ৪/এ বাসার দুতলার একটি কক্ষ থেকে সোমবার (২৩ নভেম্বর) দুপুর দেড়টায় দক্ষিণ সুরমা থা’নার লালাবাজার ইউনিয়নের ফুলদি এলাকার মে’য়ে নববধূ সৈয়দা তামান্না বেগমের লা’শ উ’দ্ধা’র করে পু’লিশ। এর আগ থেকেই তামান্নার স্বামী আল মামুন পলাতক রয়েছেন।

তামান্না হ’ত্যার পর থেকে বিভিন্ন বিষয় বের হয়ে আসছে তামান্নার পরিবারের স্বজনদের মুখ থেকে। তামান্নার মা অ’ভিযোগ করে বলেন, সিলেটের মেঘনা লাইফ ইনসুরেন্সে কর্ম’রত শাহনাজ পারভীন তাদেরকে বিভিন্ন প্রলো’ভন দেখিয়ে মামুনের সাথে বিয়ে দিতে জো’র করেন। মামুনের সিলেটে নিজস্ব বাসা আছে, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আছে বলেন শাহনাজ পারভীন।

নি’হ’তের মা বলেন, শাহনাজ পারভীন মামুনের চাচাতো বোন ছিলেন বলে পরিচয় দেন তাদের কাছে। এমনকি মামুনের বাড়ি বরিশালে ছিলো সেটিও তিনি গো’প’ন রাখেন। আইডি কার্ড দিয়ে সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকার বাসিন্দা বলে জানান তিনি। কিন্তু এখন খবর পাওয়া যায় মামুনের আইডি কার্ড ভু’য়া ছিলো। এমনকি সে বিবাহিত ছিলো আর তার একটি সন্তানও ছিলো সেটিও গো’প’ন রাখেন শাহনাজ পারভীন বলে জানান নি’হ’ত তামান্নার মা। তামান্না খু’ন হওয়ার পর সোমবার রাত পর্যন্ত নি’হ’তের পরিবারের সাথে যোগাযোগ ছিল ঘট’ক শাহনাজ পারভীনের। কিন্তু এর পর থেকে নিজের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন বন্ধ করে তিনি লাপাত্তা রয়েছেন। পারভীনসহ বাকি আসামীদের হন্য হয়ে খুঁজছে পু’লিশ।

এদিকে, সোমবার (২৩ নভেম্বর) রাতে নি’হ’তের ভাই সৈয়দ আনোয়ার হোসেন রাজা বাদী হয়ে কোতোয়ালি থা’নায় মা’ম’লা ( নং ৫৮) দায়ের করে। মা’ম’লায় নি’হ’তের স্বামী মো. আল মামুনসহ ৬ জনকে আ’সা’মি করা হয়েছে। মা’ম’লায় মামুন ছাড়াও অন্য আ’সা’মিরা হলেন- এম’রান, পারভীন, মাহবুব সরকার, বিলকিস ও শাহনাজ। এছাড়া অ’জ্ঞা’তনামা আরও কয়েকজনকে আ’সা’মি করা হয়েছে।

এরপর সোমবার (২৩ নভেম্বর) রাতে গো’প’ন সংবাদের ভিত্তিতে এজহার নামীয় ২নং আসামী এম’রানকে কোতোয়ালি থা’নাধীন সোবহানীঘাট এলাকা থেকে গ্রে’প্তা’র করে পু’লিশ। বাকিরা এখনো পলাতক রয়েছেন বলে জানা যায়। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন কোতোয়ালী থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) মোহাম্ম’দ সেলিম মিঞা। তিনি বলেন বাকি আসামীদেরও গ্রে’প্তা’রের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পু’লিশ।

Back to top button