প্রবাস

মানব পাচার অ’ভিযোগে সৌদি নাগরিককে দেশে ফেরত

টাইমস টিভি ডেস্কঃ বেআইনি কাজে সম্পৃক্ততার অ’ভিযোগে এক সৌদি নাগরিককে দেশে পাঠিয়েছে পু’লিশের বিশেষ শাখা (এসবি)। মানব পাচারের সঙ্গে সম্পৃক্ততা, হোটেলের বিল পরিশোধ না করা এবং ব্যবসায়িক অংশীদারের সঙ্গে প্রতারণার অ’ভিযোগ ছিল তাঁর বি’রু’দ্ধে। ভুক্তভোগীরা বলছেন, থা’না-পু’লিশ এবং সৌদি দূতাবাসে লিখিত অ’ভিযোগ জানানোর পরও তাঁর বি’রু’দ্ধে কেউ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এতে তাঁরা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন।ওই সৌদি নাগরিকের নাম সালেহ ওবায়েদ আলানাজি। ২০১৬ সালের নভেম্বরে তিনি অন অ্যারাইভাল ভিসায় বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। এক মাস পরই তাঁর ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। আর পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয় গত বছরের ২২ জুলাই। চার বছর ধরে তিনি অ’বৈ’ধভাবে বাংলাদেশে অবস্থান করছিলেন। গত মঙ্গলবার সৌদি এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে তাঁকে বাংলাদেশ সরকারের খরচায় দেশে পাঠিয়ে দেয় এসবির ডিপ্লোমেটিক অ্যান্ড প্রটোকল উইং (এসসিও)।

সালেহ ওবায়েদ ২০১৬ সালের ৩০ নভেম্বর থেকে ২০১৮ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত তাঁদের একটি অ্যাপার্টমেন্টে অবস্থান করেছিলেন। এ সময়কালে তাঁর কাছে ১০ লাখ ৬০ হাজার টাকা বিল জমা হয় তাঁদের। কিন্তু বারবার কথা দিয়েও তিনি বিল পরিশোধ করেননি। একসময় টাকা চাইলেই তিনি হু’মকি-ধমকি দেওয়া শুরু করেন।
এসবির তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে ৪১ জন সৌদি নাগরিক অবস্থান করছেন। এর মধ্যে নয়জন বৈধভাবে অবস্থান করছেন। বাকি ৩২ জনের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে।সালেহ ওবায়েদের বি’রু’দ্ধে বিভিন্ন অ’ভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে একটি প্রতিবেদন তৈরি করেছে এসবি। সেখানে বলা হয়েছে, সালেহ ওবায়েদ দীর্ঘ দুই বছর গুলশানের রেফ্লেশিয়া সার্ভিস অ্যাপার্টমেন্টে থেকে তাদের বিল পরিশোধ করেননি। তিনি তাদের নানাভাবে হু’মকি দিয়েছেন, এমনকি নিরাপত্তা প্রহরীকে মা’রধরও করেছেন।

Back to top button